ক দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক পূর্ণাঙ্গ নাম

একটি মেয়ের পূর্ণাঙ্গ নাম রাখতে হলে নামের আগে এবং পিছে সুন্দর বিশেষণ যুক্ত করতে হয়। তবে সর্বপ্রথমে মধ্যের যে নামটি সেই নামটি ধরে যেহেতু প্রত্যেক মেয়েকে ডাকা হয় তাই এই নামটি আগে আমাদের ঠিক করে নিতে হবে। মধ্যের নাম যদি আপনি ঠিক করে নিতে পারেন তাহলে অবশ্যই নামের পূর্বে এবং পরে বিশেষণ গুলি যুক্ত করে আমরা পূর্ণাঙ্গ নামটি প্রকাশ করতে পারি। আজকে আপনারা আমাদের এখানে এসেছেন ক বর্ণটি দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক পূর্ণাঙ্গ নাম জানার জন্য।

আমরাও আপনাদের জন্য আজকে ক বর্ণটি দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নামের তালিকা প্রকাশ করব। আপনাদের আমাদের সকলের আশেপাশে আমরা বিভিন্ন মেয়েদের নাম ইতিমধ্যেই দেখেছি যে নামগুলি ক বর্ণটি দিয়ে রয়েছে এবং সেই নাম গুলি অত্যন্ত সুন্দর চমৎকার নাম। মেয়েদের নাম গুলি বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই সুন্দর নাম হয়ে থাকে। আর এই কারণে কণ্যটি যেহেতু ব্যঞ্জনবর্ণের প্রথম বর্ণ এই বর্ণটি দিয়ে অনেক সুন্দর সুন্দর নাম রয়েছে। আর আমরা যেহেতু মুসলিম অধ্যুষিত এলাকায় থাকি তাই যে সকল মেয়েরাই দেখি তারা প্রায় বেশিরভাগ মহিলা মুসলিম সম্প্রদায়ের অন্তর্ভুক্ত।

এই সকল মেয়েদের যে নামগুলো আমরা ক অক্ষরটি দিয়ে দেখেছি সেই নামগুলো অবশ্যই সুন্দর। কিন্তু আমরা সকলেই চাই যে আমাদের সত্যজত কন্যা সন্তানের যে নাম রাখবো সেই নামটি যেন আনকমন আধুনিক সুন্দর নাম হয়। এবং এই সুন্দর নামটি যেন আশেপাশে খুব বেশি না থাকে। অর্থাৎ যাকে বলা হয় আনকমন সুন্দর নাম। মেয়েদের ইসলামিক নাম গুলো অত্যন্ত সুন্দর হয়ে থাকে। আবার নামগুলো যদি ক বর্ণটি দিয়ে হয় তাহলে তো আরো বেশি সুন্দর হয়। আমরা এখানে ক বর্ণটি দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক পূর্ণাঙ্গ নামের তালিকা প্রকাশ করব এবং সেই নামের তালিকাতে নামের সাথে সাথে আপনারা নামের অর্থ গুলোও দেখে নিতে পারবেন।

কারণ জানেন যে বর্তমান সময়ে যে কোন মানুষ যেকোন মেয়ের নাম এর সাথে সাথে নামের অর্থ কি সেই বিষয়টিও জানতে চাই বা জানার কথা বলে থাকে। তাই এতে করে দেখা যায় যে নামের সাথে সাথে নামের অর্থ কেউ সুন্দর হতে হবে। এই কারণে আমরা আপনাদের জন্য ক অক্ষরটি দিয়ে যে ইসলামিক মেয়েদের পূর্ণাঙ্গ নামগুলি প্রকাশ করছি সেই নামগুলোর সাথে সাথে নামের অর্থ গুলো প্রকাশ করেছি। যাতে করে আপনাদের এই নামের অর্থ গুলি দেখার জন্য আর অন্য কোথাও না যাওয়ার প্রয়োজন হয়। আমরা জানি যে বর্তমান সময়ের প্রত্যেক বাবা-মা ই চায় যে তাদের সন্তানের নাম অত্যন্ত সুন্দর আনকমন এবং ইসলামিক নাম হোক যদি ইসলাম সম্প্রদায়ের মানুষ হয়ে থাকে।

কারণ ইসলাম ধর্মে নামের একটি মাহাত্ম্য রয়েছে। তার কারণ হলো আমাদের মহানবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু সাল্লাম নামের বিষয়ে একটি জায়গায় একটি কথা বলেছেন আর তা হল তিনি বলেছেন হাশরের ময়দানে তোমাদেরকে তোমার নাম এবং তোমার পিতার নাম ধরে ডাকা হবে। তাই এই নামের যে গুরুত্ব রয়েছে এ বিষয়টি আপনারা বুঝে নিতে পারলেন। এ কারণে আমরা এখন ক বর্ণটি দিয়ে যে নাম গুলো অর্থাৎ ইসলামিক নাম গুলো প্রকাশ করব সেই নামের অর্থসহ প্রকাশ করব।

১।কাদিরা (Qudera)-নামের অর্থ-শক্তিশালী
২।কুদরত (Qudrat)-নামের অর্থ- শক্তি, ক্ষমতা
৩।কাদিমা (Qadema)-নামের অর্থ- অগ্রসর, আগত
৪।কুদওয়া (Qudwa)-নামের অর্থ- আদর্শ
৫।কুররাতুল  আইন (Qurratul Ayin)-নামের অর্থ-নয়নমনি
৬।কাদীরা (Qadira )-নামের অর্থ-শক্তিশালী, সমর্থ
৭।কারীনা (Qarina)-নামের অর্থ-সঙ্গিনী  স্ত্রী
৮।করিরা (Qarira)-নামের অর্থ-আনন্দিতা
৯।কাসীদা (Qasida)-নামের অর্থ-গীত, কবিতা
১০।করিবা (Qariba)-নামের অর্থ-নিকটবর্তী, ঘনিষ্ঠ
১১।করিনা (Qarina)-নামের অর্থ-সঙ্গিনী
১২।কাত্বরুন্নাদা (Quatrun  Nada)-নামের অর্থ-মহত্ত্বের বিন্দু
১৩।কামরা (Qamra)-নামের অর্থ-জোৎস্না, শুভ্র
১৪।কাসিমাত (Qasimat)-নামের অর্থ-সৌন্দর্য, চেহারা
১৫।কুতরুন্নাদা (Quatru8n Nada)-নামের অর্থ-সুগন্ধময়কাঠের টুকরো
১৬।কামারুন (Qumarun)-নামের অর্থ-চাঁদ
১৭।ক্বিসমাত (Qismat)-নামের অর্থ-ভায়, অংশ, ভাগ
১৮।কাতরুন (Qatrun)-নামের অর্থ-মহত্ত্ব
১৯।কাসীবা (Kaseba)-নামের অর্থ-উপার্জনকারী
২০।কুবরা (Kubra)-নামের অর্থ-বৃহৎ, বড়
২১।কাবশা (Kabsha)-নামের অর্থ- দুম্বা
২২।কুহল (Kuhl)-নামের অর্থ- সুরমা
২৩।কারীমা (Karima)-নামের অর্থ-দানশীলা,  উচ্চমনা
২৪।কুলছুম (Kulsum)-নামের অর্থ-দানশীলা
২৫।কাওকাব (Kaukab)-নামের অর্থ-তারকা
২৬।কানিজ (Kanji)-নামের অর্থ-অনুগতা
২৭।কালিমা (Kalmia)-নামের অর্থ-কথোপকথন কারিনী
২৮।কাজেমা (Kazema)-নামের অর্থ-ক্রোধ  সম্বরণকারিণী
২৯।কিনানা (Kinana)-নামের অর্থ-সাহাবীর নাম
৩০।কামেলা (Kamela)-নামের অর্থ-পরিপূর্ণ,  পূর্নাঙ্গ
৩১।কাওয়াবাত (Kawkabat)-নামের অর্থ-সন্ধ্যা তাঁরা
৩২।কাতেমা (Katima)-নামের অর্থ-যে নারী অপরের দোষ গোপন রাখে
৩৩।কায়েদা (Qaieeda)-নামের অর্থ-নেত্রী, প্রধান, লিডার
৩৪।কামরুন নিসা (কামরুন্নিসা) (Qamrun Nisa)-নামের অর্থ-মহিলাদের চাঁদ
৩৫।কাসি মাতুত তায়্যিবাহ (Quasima Tut Taiyabj)-নামের অর্থ-পবিত্র চেহারা
৩৬।কানিজ ফাতিমা (Kanji Fatimah)-নামের অর্থ-অনুগতা নিষ্পাপ
৩৭।কাসিদা মুকাররামা (Quasida Mukarrama)-নামের অর্থ-সংবাদ বহনকারিনী, সম্মানিত
৩৮।কাসিমাতুন নাযীফাহ (Quasimatun Naziah)-নামের অর্থ-পরিচ্ছন্ন চেহারা
৩৯।কানিজ মাহফুজা (Kanji Mahfuza)-নামের অর্থ-অনুগতা সুরক্ষিতা
৪০।কালিমাতুন ন্নিসা (Kalimatun Nisa)-নামের অর্থ-কথোপকথন কারিণী রমণী
৪১।কুলছুম বেগম (Kulsum Beegom)-নামের অর্থ-দানশীলা মহিলা
৪২।কারিমা দিলশাদ (Karma Dilshad)-নামের অর্থ-উচ্চমনা মনোহারিনী
৪৩।করিনা হায়াত (Qarina Hayat)-নামের অর্থ-জীবন সঙ্গিনী
৪৪।কাওকাব হাসনা ( Kaukab Hasna)-নামের অর্থ-চমৎকার তারকা
৪৫।কুবরা মারজানা (Kubrab Marjana)-নামের অর্থ-বড়মুক্তা, বৃহৎ প্রবাল
৪৬।কিসমত গালিবা (Qismat Galiba)-নামের অর্থ-ভাগ্য বিজয়ীনি

এখান থেকে আপনি অবশ্যই আপনার কন্যা সন্তানের জন্য অবশ্যই একটি অথবা দুইটি ইসলামিক পূর্ণাঙ্গ নাম পেয়ে যাবেন বলে মনে করছি। কারণ আমরা যে নামগুলি এখানে প্রকাশ করছি সেই নাম গুলি সাধারণত বিভিন্ন দিক থেকে দেখে তারপরে প্রকাশ করার চেষ্টা করেছি। তাই আপনাদেরকে অবশ্যই এই নামের মধ্যে থেকে একটি দুটি নাম আপনার সদ্যোজাত কন্যা সন্তানের জন্য পছন্দ করতেই হবে। এ ধরনের যে কোন তথ্য পাওয়ার জন্য আপনারা অবশ্যই আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করে আমাদের পাশে থাকবেন বলে আমরা বিশ্বাস করি।

Leave a Comment